ঈদের নামাজে অংশ নিতে বায়তুল মোকাররমে মুসল্লির ঢল

সংগৃহীত ছবি

ঈদের নামাজে অংশ নিতে বায়তুল মোকাররমে মুসল্লির ঢল

অনলাইন ডেস্ক

আজ পবিত্র ঈদুল আজহা। মুসলমানদের অন্যতম বড় ধর্মীয় উৎসবের দিন। যথাযথ ধর্মীয় মর্যাদা ও ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে সারা দেশের মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষজন ঈদুল আজহা উদযাপন করবেন।

আজ রাজধানী ঢাকার জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে ঢল নেমেছে মুসল্লিদের।

সকাল ৭টায় ঈদের প্রথম জামাতে অংশ নেওয়ার জন্য দলবেঁধে বায়তুল মোকাররমে প্রবেশ করছেন তারা।

সোমবার (১৭ জুন) ভোর সাড়ে ৫টার পর থেকেই মসজিদে আসতে শুরু করেন বিভিন্ন বয়সী মানুষজন। ঈদের আনন্দ নিয়ে অভিভাবকদের সাথে ছোট বাচ্চা থেকে শুরু  করে কিশোর এবং তরুণদেরও নামাজে নেওয়ার জন্য মসজিদে আসতে দেখা গেছে।

মুসল্লিরা বলছেন, ঈদুল আজহায় নামাজের পর আরও বড় একটি কার্যক্রম রয়েছে।

মহান আল্লাহর সন্তুষ্টি এবং অনুগ্রহ লাভের আশায় ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা যার যার সামর্থ্য অনুযায়ী পশু কুরবানি করবেন। সেজন্য কোরবানির কার্যক্রম সুন্দর এবং সুষ্ঠুভাবে সময় নিয়ে সম্পন্ন করার জন্যই ঈদের প্রথম জামাতে অংশ নিচ্ছেন।

আবার নামাজ শেষে মুসল্লিদের অনেকেই যাবেন কবরস্থানে। চির বিদায় নেওয়া স্বজনদের কবরের পাশে দাঁড়িয়ে অশ্রুসজল চোখে এই আনন্দের দিনে তাদের রুহের মাগফিরাত কামনা করে আল্লাহর দরবারে আকুতি জানাবেন।

তবে সার্বিক নিরাপত্তা ব্যবস্থায় আরোপ করা হয়েছে ব্যাপক কড়াকড়ি। বায়তুল মোকাররম মসজিদের উত্তর গেটসহ সবগুলো প্রবেশ পথেই পুলিশ, র‌্যাবসহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর বিভিন্ন সংস্থার সদস্যদের অবস্থান দেখা গেছে। জায়নামাজ ছাড়া কোনো ধরনের ব্যাগ বা অন্যকিছু নিয়ে ভেতরে প্রবেশ করতে পারছেন না কেউই।

অপরদিকে, জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে ঈদুল আযহার প্রথম জামাত সকাল ৭টায় অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে।  প্রথম জামাতে ইমামতি করবেন বায়তুল মুকাররম জাতীয় মসজিদের পেশ ইমাম হাফেজ মাওলানা এহসানুল হক। মুকাব্বির থাকবেন জাতীয় মসজিদের মুয়াজ্জিন (অব:) হাফেজ ক্বারী মো. আতাউর রহমান।

ইসলামিক ফাউন্ডেশন সূত্রে আরও জানা যায়, সকাল ৮টায় অনুষ্ঠিত হবে দ্বিতীয় জামাত। এতে ইমামতি করবেন বায়তুল মুকাররমের পেশ ইমাম হাফেজ মাওলানা মুহীউদ্দিন কাসেম। মুকাব্বির থাকবেন এই মসজিদের খাদেম আব্দুল হাদী।

এরপর সকাল ৯টায় তৃতীয় জামাতে ইমামতি করবেন ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মুফাসসির ড. মাওলানা আবু সালেহ পাটোয়ারী। এতে মুকাব্বির থাকবেন জাতীয় মসজিদের খাদেম মো. জসিম উদ্দিন।

সকাল ১০টায় অনুষ্ঠিত হবে ঈদুল আজহার চতুর্থ জামাত। এতে ইমামতি করবেন জামেয়া আরাবিয়া মিরপুরের মুহতামিম মাওলানা সৈয়দ ওয়াহিদুজ্জামান। মুকাব্বির থাকবেন বায়তুল মুকাররমের খাদেম রুহুল আমিন।

আর সবশেষ বেলা পৌনে ১১টায় পঞ্চম ও সর্বশেষ জামাতে ইমামতি করবেন ফাউন্ডেশনের  মুফতি মাওলানা মোহাম্মদ আবদুল্লাহ। মুকাব্বির থাকবেন জাতীয় মসজিদের খাদেম মো. আক্তার মিয়া।

অবশ্য এই ৫টি জামাতের কোনটিতে ইমাম উপস্থিত না থাকলে বিকল্প ইমাম হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন হাইকোর্ট মাজার মসজিদের ইমাম হাফেজ মো. আশরাফুল ইসলাম।

news24bd.tv/কেআই

এই রকম আরও টপিক

পাঠকপ্রিয়