সড়কে চাঁদাবাজির অভিযোগে আটক ৫

সড়কে চাঁদাবাজির অভিযোগে আটক ৫

অনলাইন ডেস্ক

দিনাজপুরে পৃথক অভিযান চালিয়ে সড়কে পণ্যবাহী পরিবহনে চাঁদাবাজির সময় পাঁচজনকে আটক করেছে র‌্যাব-১৩ দিনাজপুরের ক্রাইম প্রিভেনশন কোম্পানির সদস্যরা। এ সময় জব্দ করা হয় চাঁদাবাজির টাকা।  

বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে দিনাজপুর-বোচাগঞ্জ সড়কের দিনাজপুর শহরের কাঞ্চন সেতু এলাকা থেকে তিনজনকে আটক করে র‌্যাব। এরআগে একইদিন বিকালে খানসামা উপজেলার জিয়া সেতুর পশ্চিম পাশ থেকে পণ্যবাহী পরিবহনে চাঁদাবাজির সময় আটক করা হয় আরও দুজনকে।

আটককৃতরা হলেন- মমিনুল ইসলাম (৫৫) বিরলের চককাঞ্চন এলাকার ইলিয়াছ আলী ছেলে, আব্বাস আলী (৪২) দিনাজপুর শহরের পশ্চিম বালুয়াডাঙ্গা মহল্লার সেকেন্দার আলীর ছেলে, সাইফুল ইসলাম বাদল (৫০) একই মহল্লার মৃত নুর আলীর ছেলে। এ সময় চাঁদা আদায়ের ৫টি রশিদ বই, ২টি মোবাইল, ২টি সিম কার্ড এবং নগদ টাকাসহ এবং ২টি টর্চ লাইট উদ্ধার করা হয়েছে।

অপরদিকে, খানসামার জিয়া সেতুর পশ্চিম পাশে পণ্যবোঝাই গাড়ি থেকে চাঁদা আদায় করার সময় আটক আমিনুল ইসলাম (৩০) বীরগঞ্জ উপজেলার বড়করিমপুর এলাকার আব্দুস সালামের ছেলে, বিপ্লব ইসলাম (২০) খানসামা উপজেলার তোবিন্দপুর এলাকার ইয়াকুব আলীর ছেলে।  

র‌্যাব-১৩ দিনাজপুরের উপ পরিচালক ( মিডিয়া) স্কোয়াড্রন লিডার মাহমুদ বশির আহমেদ এর সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, বৃহস্পতিবার দিবাগত মধ্যরাতে দিনাজপুর শহরের কাঞ্চন ব্রীজ এলাকায় পণ্যবাহী ট্রাকে চাঁদাবাজির সময় ৩ জনকে আটক করে র‌্যাব সদস্যরা।

 

তারা একটি রেজিস্টার্ড পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নেরসহ পৌরসভার ইজারা আদায়ের নামে দীর্ঘদিন যাবৎ পণ্যবাহী ট্রাক, মিনি ট্রাক, কাভার্ড ভ্যান, মাইক্রোবাস অটো রিক্সা এবং সিএনজি হতে অবৈধভাবে চাঁদা আদায় করে আসছিল।

অপরদিকে, খানসামার জিয়া সেতুর পশ্চিম পাশে পণ্যবোঝাই গাড়ি থেকে চাঁদা আদায় করার সময় দুইজনকে আটক করা হয়। দুটি ঘটনায় র‌্যাব বাদি হয়ে সংশ্লিষ্ট থাকায় মামলা করেছে এবং আটকদের থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

news24bd.tv/কেআই

এই রকম আরও টপিক

পাঠকপ্রিয়