অতিরিক্ত সময়ের গোলে ক্রোয়েশিয়াকে হারিয়ে নকআউটে ইতালি

সংগৃহীত ছবি

অতিরিক্ত সময়ের গোলে ক্রোয়েশিয়াকে হারিয়ে নকআউটে ইতালি

অনলাইন ডেস্ক

পেনাল্টি মিসের ভুল শুধরে নিতে এক মিনিটও লাগল না লুকা মদ্রিচের। তার রেকর্ডগড়া গোলে পাওয়া লিড ধরে রেখে নকআউট পর্বে ওঠার সমস্ত আয়োজন করে ফেলল ক্রোয়েশিয়া। কিন্তু একদম শেষ মুহূর্তে তাদের স্বপ্ন ভেঙে গুঁড়িয়ে দিলেন মাতিয়া জাক্কাগনি। শেষ বাঁশি বাজার ঠিক আগে জাল কাঁপিয়ে ইতালিকে শেষ ষোলোতে পৌঁছে দিলেন তিনি।

লাইপজিগে সোমবার রাতে ২০২৪ সালের ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপের 'বি' গ্রুপের নাটকীয় ম্যাচটি ড্র হয়েছে ১-১ গোলে। এতে শিরোপা ধরে রাখার অভিযানে টিকে থাকছে আজ্জুরিরা। ৯৮তম মিনিটের লক্ষ্যভেদে পাওয়া একটি পয়েন্টই যথেষ্ট হয়েছে তাদের গ্রুপ রানার্সআপ হওয়ার জন্য। অন্যদিকে, কাগজে-কলমে আশা বেঁচে থাকলেও এবারের আসর থেকে বিদায় প্রায় নিশ্চিত হয়ে গেছে ক্রোয়াটদের।

ম্যাচের প্রথমার্ধের শুরুতে ক্রোয়েশিয়া ভীতি ছড়ালেও বাকি পুরোটা অংশে দাপট ছিল ইতালির। কাঙ্ক্ষিত গোলের দেখা যদিও মেলেনি। তবে বিরতির পর খেলার মোড় ঘুরে যেতে বেশি সময় লাগেনি।

ইতালির ডি-বক্সে ডিফেন্ডার দাভিদে ফ্রাত্তেসির হাতে বল লাগলে ভিএআরের সাহায্য নিয়ে ক্রোয়েশিয়ার পক্ষে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। কিন্তু ৫৪তম মিনিটে মদ্রিচের নেওয়া ওই স্পট-কিক ঝাঁপিয়ে ঠেকিয়ে দেন গোলরক্ষক জিয়ানলুইজি দোন্নারুমা। বলের দখল অবশ্য ধরে রাখে ক্রোয়েশিয়া। ফের আক্রমণে ওঠে তারা। এই দফায় লুকা সুসিচের ক্রসে আন্তে বুদিমিরের শট দোন্নারুমা অসাধারণ দক্ষতায় আটকালেও বিপদমুক্ত করতে পারেননি। আলগা বল জালে পাঠিয়ে খলনায়ক থেকে মুহূর্তেই নায়কে পরিণত হন মিডফিল্ডার মদ্রিচ।

গোল করে ১৬ বছরের পুরনো রেকর্ড ভেঙে দেন ৩৮ বছর ২৮৯ দিন বয়সী মদ্রিচ। ইউরোর ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি বয়সী গোলদাতা এখন তিনি। আগের কীর্তিটি ছিল অস্ট্রিয়ার ইভিকা ভাস্তিচের।

এরপর আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণে চলতে থাকে ম্যাচ। ঘড়ির কাঁটা ঘোরার সঙ্গে সঙ্গে উজ্জ্বল হতে থাকে ক্রোয়েশিয়ার আশা, ফিকে হতে থাকে ইতালির সম্ভাবনা। তবে যোগ করা আট মিনিটের শেষ মিনিটে তৈরি হয় স্মরণীয় একটি মুহূর্ত।

ডিফেন্ডার রিকার্দো কালাফিওরি সামনে এগিয়ে ক্রোয়েশিয়ার ডি-বক্সের বাম দিকে বল বাড়ান। প্রথম ছোঁয়ায় বাঁকানো শটে গোলরক্ষক দমিনিক লিভাকোভিচকে ফাঁকি দিয়ে জাল কাঁপান বদলি মিডফিল্ডার জাক্কাগনি। তার প্রথম আন্তর্জাতিক গোলে স্বস্তির সঙ্গে উল্লাসের জোয়ার বয়ে যায় ইতালি শিবিরে। কিছুক্ষণ পরই বেজে ওঠে শেষ বাঁশি।

ইতালি অর্জন করেছে ৪ পয়েন্ট। ক্রোয়েশিয়ার নামের পাশে রয়েছে ২ পয়েন্ট। একই সময়ে শুরু হওয়া এই গ্রুপের আরেক ম্যাচে ফেরান তরেসের কল্যাণে স্পেন ১-০ গোলে হারিয়েছে আলবেনিয়াকে। তিন ম্যাচের সবকটি জিতে পূর্ণ ৯ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপসেরা হয়েছে ইউরোর রেকর্ড তিনবারের চ্যাম্পিয়ন স্পেন। বিদায় নেওয়া আলবেনিয়া পেয়েছে মাত্র ১ পয়েন্ট।

news24bd.tv/ab

এই রকম আরও টপিক

পাঠকপ্রিয়