নাটোরের ফাতেমাকে বিয়ে করতে যা যা করলেন চীনা যুবক লি সি জাং 

লি সি জাং ও ফাতেমা

নাটোরের ফাতেমাকে বিয়ে করতে যা যা করলেন চীনা যুবক লি সি জাং 

অনলাইন ডেস্ক

ফাতেমা খাতুন। বাড়ি নাটোর সদর উপজেলার লক্ষ্মীপুর খোলাবাড়িয়া ইউনিয়নের বড়বাড়িয়া গ্রামে। বাবার নাম,  আবু তাহের । ফাতেমা নবাব সিরাজউদ্দৌলা কলেজের ইসলামের ইতিহাস বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্রী।

গত বৃহস্পতিবার থেকে ফাতেমাদের বাড়িতে উৎসুক মানুষের ভিড়। ফাতেমাও খুব হাসিখুশি। যেন জীবনে সব পেয়েছেন এমন একটা সুখীভাব চোখে মুখে।  
গত বৃহস্পতিবার চীনের সাংহাই থেকে এক যুবক এসেছেন।
 নাম লি সি জাং। তার সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ফাতেমার। ফাতেমার টানেই বাংলাদেশে এসেছেন।  
তাদের পরিচয় চীনা অ্যাপ উই চ্যাটে । কেউ কারও ভাষা জানেন না। প্রথম আলাপ হয়েছিল ইংরেজিতে। পরে ফাতেমা শিখে নেন চীনা ভাষা। প্রায় প্রতিদিনই কথা হতো। এভাবে চলল প্রায় ছয় মাস। শুরু হয় প্রেম।  এরপর ফাতেমাও তাকে আসতে বলেন। লি সি জাংও ছুটে আসেন। বৃহস্পতিবারই তাদের বিয়ে হয়।  


ফাতেমার পরিবার জানিয়েছে, গত বৃহস্পতিবার বিকেলে চীন থেকে ফাতেমাদের বাড়িতে আসেন লি সি জাং। নিজের বৌদ্ধধর্ম ত্যাগ করে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন।  নতুন নাম আলী। এরপর সন্ধ্যায় সাত লাখ টাকা কাবিনে ইসলামি রীতিতে ফাতেমার সঙ্গে তাঁর বিয়ে হয়। এরপর গতকাল রোববার আদালতে গিয়ে বিয়ের নিবন্ধন করেন দুজনে।
ফাতেমা খাতুন আজ সোমবার স্থানীয় সাংবাদিকদের বলেন,  তাঁকে ভালোবেসে লি সি জাং বাংলাদেশে এসেছেন। সে তাঁর জন্য নিজের ধর্ম ত্যাগ করেছেন। সুখে-দুঃখে তাঁরা একসঙ্গে থাকতে চান। তিনি স্বামীর সঙ্গে তাঁদের দেশে (চীন) চলে যাওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেন।
নাটোর সদর উপজেলার লক্ষ্মীপুর খোলাবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নুরুজ্জামান বলেন, এরকম বিয়ে আমাদের এলাকায় প্রথম। মেয়েটি শিক্ষিত। ছেলেটি নিজেকে চিকিৎসক দাবি করেছে।  

news24bd.tv/ডিডি
 

পাঠকপ্রিয়